শিশুকে ফর্মুলা মিল্ক দিলে প্রতি মাসে ৫০০ গ্রামের কতগুলো দুধের জার লাগবে জানেন কি ?

47 Shares

শিশুকে ফর্মুলা মিল্ক দিলে প্রতি মাসে ৫০০ গ্রামের কতগুলো দুধের জার লাগবে জানেন কি ?

ফর্মুলা মিল্ক আপনাকে কিনে খাওয়াতে হয় এবং তৈরি করতে হয়। আর ব্রেস্ট মিল্ক প্রাকৃতিক ভাবে পেয়ে থাকেন । দেখুন প্রতিমাসে কি পরিমান টাকা আপনি অপচয় করছেন !!!!

  • ১ম মাসে ৪ টি জার লাগবে যার মূল্য ২৪০০ টাকা।
  • ২য় মাসে ৬ টি জার লাগবে যার মূল্য ৩৬০০টাকা।
  • ৩য় ও ৪ থ মাসে ৭ টি জার লাগবে যার মূল্য ৪২০০টাকা।
  • ৫ম ও ৬ষ্ঠ মাসে ৮টি জার লাগবে যার মূল্য ৪৮০০টাকা।

বোতল ফিডিং এর অসুবিধা :

১। বন্ধনের ঘাটতি

ব্রেস্ট ফিডিং এর ক্ষেত্রে সন্তানের সাথে মায়ের বন্ধন তৈরি হয়, বোতোলে করে খাওয়ালে এই অনন্য সম্ভাবনাটি আপনি হারাতে পারেন।

২।ডায়রিয়া

ঘন ঘন ডায়রিয়া হতে পারে । পারসিনসটেন্ট ডায়রিয়া হতে পারে যা ১৪ দিন বা তার বেশি দিন স্হায়ী হয় ।যার ফলে শিশু ক্রমান্বয়ে মারাত্মক অপুষ্টির শিশুতে পরিনত হতে পারে ।

৩।শ্বাসনালী তে সংক্রমন :

বারে বারে শ্বাসনালী তে সংক্রমন হতে পারে । নিউমনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে শিশু মারাও যেতে পারে ।

৪। ভিটামিনের ঘাটতি

ভিটামিনের অভাব বিশেষ করে ভিটামিন এ এর ঘাটতি হতে পারে ।

৫। এলার্জির সমস্যা হতে পারে ।

৬। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

বুকের দুধের পরিবর্তে ফর্মুলা দুধ খাওয়ানোর সবচেয়ে বড় অপকারিতা হচ্ছে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদী স্বাস্থ্য উপকারিতার অভাব। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়।

৭।টাকার অপচয়
ফর্মুলা মিল্ক আপনাকে কিনে খাওয়াতে হয় এবং তৈরি করতে হয়। আর ব্রেস্ট মিল্ক প্রাকৃতিক ভাবে
শিশুর জন্য পরিপূর্ণ পুষ্টি নিয়ে তৈরি হয় আপনার মাঝে যা যখনি শিশুর ক্ষুধা পায় তখনই খেতে পারে।

৮।খুব সহজে হজম হয়না

ফর্মুলা মিল্ক খুব সহজে হজম হয়না বলে শিশুর বিভিন্ন ধরণের পেটের সমস্যা হতে দেখা যায় যেমন- কোষ্ঠকাঠিন্য ও ডায়রিয়া।

৯।অনেক সময় নেয়
ব্রেস্ট ফিডিং করালে বাচ্চার ক্ষুধা লাগলেই আপনি তাকে খাওয়াতে পারেন।বোতলে করে খাওয়ানোর ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় উপাদানগুলো জীবাণুমুক্ত করার জন্য সময় লাগে এবং সব সময় ঘরে পর্যাপ্ত দুধ আছে কিনা তা স্মরণে রাখতে হয়।
১০।জটিল রোগ হতে পারে
ডায়েবেটিকস , হৃদরোগ , স্হুলতা , শৌশব কালীন ক্যানসার হতে পারে ।

১১। শিশুর বুদ্ধির বিকাশ ব্যাহত হয় ।

১২। শিশুর ২২০ টি বিভিন্ন অসুখ হবার সম্ভাবনা থাকে ।

১৩।প্রতি ৪ ঘন্টা অন্তর ব্রেস্ট ফিডিং করালে এটি জন্ম বিরতিকরন একটি উওম পদ্ধতি হতে পারে।তাই বোতল ফিডিং বেবির মা প্রেগনেন্ট হয়ে যেতে পারেন।

১৪। মায়েরএনিমিয়া ব্রেস্ট ক্যানসার , ওভারিয়ান ক্যানসারের ঝুঁকি বারায় ।

লেখক : Hosna ara, Dietitian

Lecturer, Diet counselling Center

Facebook Comments
47 Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *